ভূতাত্ত্বিক বিকাশ ভারতীয় পাত (Indian Tectonic Plate)


প্রাচীন মহাদেশ গন্ডোয়ানাল্যান্ডের
প্রক্ষিপ্তাংশ ভারতীয় পাত নামক একটি
প্রধান টেকটনিক পাতের উপর ভারতের
সম্পূর্ণ অংশ অবস্থিত। প্রায়
৯,০০,০০,০০০ বছর আগে ক্রিটেসিয়াস
যুগের শেষ পর্বে ভারতীয় পাতটি উত্তর
দিকে বার্ষিক ১৫ সেন্টিমিটার (৬ ইঞ্চি/
বছর) হারে সরতে শুরু করে।
৫,০০,০০,০০০ থেকে ৫,৫০,০০,০০০ বছর
আগে সিনোজোয়িক যুগের ইয়োসিন
পর্যায়ে ২,০০০-৩,০০০ কিলোমিটার
(১,২০০- ১,৯০০ মাইল) পথ অতিক্রম
করার পর পাতটির সঙ্গে এশিয়ার সংঘর্ষ
হয়। এই পাতের সরণ ছিল অন্যান্য
জ্ঞাত পাতগুলির সরণের মধ্যে দ্রুততম।
২০০৭ সালে জার্মান ভূতাত্ত্বিকরা এই
এই দ্রুত সরণের কারণ সম্পর্কে এই
সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে
গন্ডোয়ানাল্যান্ড থেকে প্রক্ষিপ্ত যে
কোনো পাতের তুলনায় এই পাতের বেধ
অর্ধেক মাত্র। ভারত ও নেপালের
বর্তমান সীমান্তের নিকট ইউরেশীয়
পাতের সঙ্গে ভারতীয় পাতের সংঘর্ষের
ফলে অরোজেনীয় বৃত্তের সৃষ্টি হয়, যার
ফলে সৃষ্ট হয় তিব্বত মালভূমি ও হিমালয়
পর্বতমালা। ২০০৯ সালের হিসেব
অনুসারে, ভারতীয় পাতটি উত্তর-পূর্বে
বার্ষিক ৫ সেন্টিমিটার (২ ইঞ্চি/বছর)
হারে সরছে। যেখানে ইউরেশীয় পাতটি
উত্তরে সরছে বার্ষিক ২ সেন্টিমিটার
(০.৮ ইঞ্চি/বছর) হারে। এই কারণে
ভারতকে “সর্বাপেক্ষা দ্রুতগামী মহাদেশ”
বলে উল্লেখ করা হয়ে থাকে। এই
সরণের ফলে ইউরেশীয় পাতটির রূপ
পরিবর্তিত হচ্ছে এবং ভারতীয় পাতটি
বার্ষিক ৪ মিলিমিটার (০.১৫ ইঞ্চি/বছর)
হারে ঘনসন্নিবিষ্ট হচ্ছে।
***Mission Geography**

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s