MISSION SLST – INTERVIEW SPECIAL


১) পৃথিবীর সর্বপ্রধান জলবিভাজিকা কাকে বলা হয়?
উঃ মধ্য এশিয়ার পার্বত্যভূমি।
২) নদীর কোন প্রকার ক্ষয়কার্যে মন্থকূপ সৃষ্টি হয়?
উঃ অবঘর্ষ।
৩) নদী কোন প্রক্রিয়ার সাহায্যে সর্বাধিক পরিমান বস্তু পরিবহন করে?
উঃ আকর্ষণ প্রক্রিয়া।
৪) বিশ্বের গভীরতম গিরিখাত কোনটি?
উঃ কলকা নদীর গিরিখাত (পেরু, দঃ আমেরিকা)।
৫) পৃথিবীর বৃহত্তম গিরিখাত কোনটি?
উঃ গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন (USA)।
৬) পৃথিবীর উচ্চতম জলপ্রপাত কোনটি?
উঃ এঞ্জেল জলপ্রপাত (ভেনেজুয়েলা)।
৭) কোলকাতা শহর গঙ্গা নদীর কোন প্রকার ভূমিরূপের ওপর অবস্থিত?
উঃ স্বাভাবিক বাঁধ।
৮) বিগত ১০০ বছরে সমুদ্রপৃষ্ঠের গড় উচ্চতার বৃদ্ধির পরিমান কত?
উঃ +২.৯ মিমি।
৯) পৃথিবীর কোন জনবসতিপূর্ণ দ্বীপ প্রথম সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধির জন্য নিমজ্জিত হয়?
উঃ সুন্দরবনের লোহাচড়া দ্বীপ (১৯৯৫ সালে)।
১০) পৃথিবীর মোট সুপেয় জলের কত শতাংশ বরফ আকারে সঞ্চিত আছে?
উঃ ৬৮.৭%
১১) পৃথিবীর সুপেয় জলের বৃহত্তম ভান্ডার কি?
উঃ মহাদেশীয় ও পার্বত্য হিমবাহ সমূহ।
১২) তিস্তা নদীর উচ্চ অববাহিকার কোন অঞ্চলে গ্রাবরেখা দেখা যায়?
উঃ লাচুং ও লাচেন অঞ্চলে।
১৩) পৃথিবীর সবচেয়ে বিখ্যাত রাপিড জলপ্রপাত কোনটি?
উঃ নায়াগ্রা জলপ্রপাত।
১৪) ভারতের একটি কাসকেড জলপ্রপাতের উদাহরন দাও।
উঃ জোনা বা জোনহা জলপ্রপাত (রাঁচি)।
১৫) ভারতের বৃহত্তম নদী দ্বীপ বা নদীচরের নাম কি?
উঃ মাজুলি (আসাম)।
১৬) একটি ভ্যানিশিং আইল্যান্ডের উদাহরন দাও।
উঃ লোহাচড়া দ্বীপ (সুন্দরবন)।
১৭) পৃথিবীর গভীরতম ফিয়র্ড কোনটি?
উঃ সোঙনে ফিয়র্ড বা সোভনে ফিয়র্ড (নরওয়ে)।
১৮) গ্রাবরেখায় সৃষ্টি হওয়া একটি ত্রিকোণাকার ভূমিরূপের নাম লিখ।
উঃ কেম।
১৯) বরফহীন পর্বত শিখরকে কি বলে?
উঃ নুনাটকস্।
২০) হিমবাহ জিভের মতো এগিয়ে গেলে, তা কি নামে পরিচিত?
উঃ স্নাউট।
২১) পৃথিবীর বৃহত্তম পাদদেশীয় হিমবাহ কোনটি?
উঃ মালাসপিনা।
২২) জমাটবদ্ধ তুষার কণা কি নামে পরিচিত?
উঃ ফার্ন।
২৩) ভারতের কোথায় রসে মতানে দেখা যায়?
উঃ লিডার নদী উপত্যকায় (জম্মু ও কাশ্মীর)।
২৪) পৃথিবীর দ্রুততম হিমবাহ কোনটি?
উঃ জ্যাকোবসাভোঁ ইসব্রে (গ্রিনল্যান্ড)।
২৫) ভারতের ঝুলন্ত উপত্যকায় সৃষ্ট একটি জলপ্রপাতের উদাহরন দাও।
উঃ বসুধারা জলপ্রপাত (বদ্রীনাথ)।
২৬) পশ্চিমবঙ্গের কোথায় উপকূলীয় বালিয়াড়ি দেখা যায়?
উঃ দীঘা।
২৭) পৃথিবীর বৃহত্তম অপসারণ গর্ত কোনটি?
উঃ কাতারা বা কোয়াতার (মিশর)।
২৮) ভারতের বৃহত্তম প্লায়া হ্রদ কোনটি?
উঃ সম্বর হ্রদ (রাজস্থান)।
২৯) আয়তন অনুসারে, পৃথিবীতে ভারতের থর মরুভূমি কোন স্থান অধিকার করে?
উঃ সপ্তম।
৩০) আফ্রিকায় মরু হ্রদ কি নামে পরিচিত?
উঃ শটস্।
৩১) ভারতের কোন রাজ্যে লোয়েস মৃত্তিকা দেখা যায়?
উঃ গুজরাট ও মধ্যপ্রদেশ।
৩২) অ্যাডোব কি?
উঃ আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপি-মিসৌরীনদী অববাহিকায় সঞ্চিত লোয়েস মৃত্তিকা।
৩৩) কোন দেশের রাজধানী শহরটি মরুদ্যানে অবস্থিত?
উঃ সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াধ।
৩৪) ফারো কি?
উঃ মরু অঞ্চলে বায়ুপ্রবাহিত শিলাখন্ডের সাথে সংঘর্ষের ফলে, ফালি ফালি দাগযুক্ত দন্ডায়মান শিলাকে ফারো বলে।
৩৫) লিংগুঅয়েড ও বারখানয়েড কি?
উঃ অ্যাকলে বালিয়াড়ির বাঁকের সামনের অংশকে লিংগুঅয়েড এবং পিছনের অংশকে বারখানয়েড বলে।
৩৬) দৈনিক গড় তাপমাত্রা নির্নয়ের সূত্র কি?
উঃ কোনোদিনের — সর্বোচ্চ তাপমাত্রা + সর্বনিম্ন তাপমাত্রা /২
৩৬) দৈনিক উষ্ণতার প্রসর নির্নয়ের সূত্র কি?
উঃ কোনো স্থানের দিনের সর্বোচ্চ উষ্ণতা – সর্বনিম্ন উষ্ণতা।
৩৭) গড় মাসিক তাপমাত্রা নির্নয়ের সূত্র কি?
উঃ কোনো মাসের প্রত্যেক দিনের গড় তাপমাত্রার যোগফল / ওই মাসের দিনসংখ্যা।
৩৮) বার্ষিক গড় উষ্ণতা নির্নয়ের সূত্র কি?
উঃ কোনো বছরের প্রতি মাসের গড় উষ্ণতার যোগফল / বছরের মোট মাস সংখ্যা।
৩৯) কোন দুই মাসের উষ্ণতার সাহায্যে বার্ষিক উষ্ণতার প্রসর নির্নয় করা হয়?
উঃ জানুয়ারি ও জুলাই।
৪০) নিরক্ষরেখা থেকে উত্তর বা দক্ষিনে প্রতি ১ ডিগ্রি অক্ষাংশের পার্থক্যে কিরূপ উষ্ণতা হ্রাস পায়?
উঃ ০.২৮ ডিগ্রি C
৪১) পৃথিবীর প্রধান গ্রিন হাউস গ্যাস কোনটি?
উঃ কার্বন ডাই অক্সাইড।
৪২) গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর ফলে পৃথিবীর উষ্ণতা বৃদ্ধির কারনে কোন কোন ফসলের উৎপাদন বাড়বে?
উঃ ভুট্টা, আখ, জোয়ার, বাজরা, রাগি প্রভৃতি।
৪৩) গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর ফলে পৃথিবীর উষ্ণতা বৃদ্ধির কারনে কোন কোন ফসলের উৎপাদন কমবে?
উঃ ধান, গম, বার্লি, ওট, সয়াবিন, তামাক, তুলো, পাট প্রভৃতি।
৪৪) কে কত সালে প্রথম ব্যারোমিটার তৈরি করেন?
উঃ বিজ্ঞানী টরিসেলি, ১৬৪৪ সালে।
৪৫) কোন যন্ত্রের সাহায্যে বায়ুচাপ পরিবর্তন পরিমাপ করা হয়?
উঃ ব্যারোগ্রাম।
৪৬) সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রতি ৩০০ মিটার উচ্চতায় কত পরিমাণ বায়ুচাপ হ্রাস পায়?
উঃ ১ ইঞ্চি বা ৩৪ মিলিবার।
৪৭) উত্তর গোলার্ধে আয়নবায়ুর গতিবেগ কত?
উঃ ১৬ কিমি/ঘন্টা।
৪৮) দক্ষিন গোলার্ধে আয়ন বায়ুর গতিবেগ কত?
উঃ ২২ কিমি/ঘন্টা।
৪৯) কোন জেট বায়ুর সাথে ভারতের শীত ঋতুর তীব্রতার সম্পর্ক রয়েছে?
উঃ উপক্রান্তীয় পশ্চিমি জেট বায়ু।
৫০) কোন কোন মেঘ পরিষ্কার আবহাওয়ার ইঙ্গিত দেয়?
উঃ সিরাস, সিরো-কিউমুলাস, অল্টো-কিউমুলাস।
৫১) কোন মেঘ আসন্ন ঝড়ের আভাস দেয়?
উঃ সিরো-স্ট্রাটাস।
৫২) কোন মেঘ প্রবল বৃষ্টিপাতযুক্ত আবহাওয়া নির্দেশ করে?
উঃ স্ট্র্যাটো-কিউমুলাস।
৫২) কোন মেঘ গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাতযুক্ত আবহাওয়া নির্দেশ করে?
উঃ স্ট্র্যাটাস।
৫৩) কোন মেঘ খারাপ আবহাওয়ার নির্দেশ করে?
উঃ নিম্বো-স্ট্র্যাটাস।
৫৪) কোন মেঘ বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল বৃষ্টি নির্দেশ করে?
উঃ কিউমুলোনিম্বাস।
৫৫) ভারতে কোন ঋতুতে পরিচলন বৃষ্টিপাত দেখা যায়?
উঃ শরৎ কাল।
৫৬) Isohyet কি?
উঃ সমবর্ষণ রেখা।
৫৭) বায়ুমন্ডলে কোন বস্তুর উপস্থিতির জন্য আকাশকে নীল দেখায়?
উঃ ধূলিকনা।
৫৮) বায়ুমন্ডলের কোন স্তরে বৈপরীত্য উত্তাপ দেখা যায়?
উঃ ট্রপোস্ফিয়ার।
৫৯) কে ওজোন গ্যাস আবিষ্কার করেন?
উঃ স্কোনবি।
৬০) পৃথিবী ও আন্তঃগ্রহমন্ডলীয় মহাকাশের সীমা কি?
উঃ ম্যাগনেটোপজ।
৬১) পৃথিবীর গড় উষ্ণতা কত?
উঃ ১৫ ডিগ্রি C
৬২) নিরক্ষরেখা থেকে উত্তরদিকে কোন সমোষ্ণরেখাকে উষ্ণমন্ডলের সীমা ধরা হয়?
উঃ ২৭ ডিগ্রি C
৬৩) প্রতি মিনিটে পৃথিবীর সৌর ধ্রুবকের পরিমান কত?
উঃ ১.৯৪ ক্যালোরি/বর্গসেমি।
৬৪) হিমালয় পর্বতের কোন ঢালের গড় উষ্ণতা বেশি?
উঃ দক্ষিন ঢালের।
৬৫) ডিগ্রি ফারেনহাইট স্কেলে কত ডিগ্রি কে হিমাঙ্ক ধরা হয়?
উঃ ৩২
৬৬) মেরুপ্রদেশের বরফ প্রতি দশকে কত শতাংশ হারে গলছে?
উঃ ৯%
৬৭) পৃথিবীর গড় উষ্ণতা ১ ডিগ্রি বাড়লে, সমুদ্রতলের উচ্চতা কত বৃদ্ধি পায়?
উঃ ১০-১২ সেমি।
৬৮) পৃথিবীর কোন ক্ষেত্র থেকে সবচেয়ে বেশি গ্রিনহাউস গ্যাস উৎপাদিত হয়?
উঃ তাপবিদ্যুৎ উৎপাদন।
৬৯) সূর্যের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য মাপার একক কি?
উঃ মাইক্রন।
৭০) ভূমির সমান্তরালে তাপপ্রবাহকে কি বলে?
উঃ অ্যাডভেকশন।
৭১) চিরবসন্তের দেশ কাকে বলা হয়?
উঃ কুইটো (ইকুয়েডর)।
৭২) ফারেনহাইট স্কেলে কত ডিগ্রিকে স্ফূটনাঙ্ক ধরা হয়?
উঃ ২১২
৭৩) সমুদ্রপৃষ্ঠে বায়ুর চাপ কত?
উঃ ১০১৩.২ মিলিবার।
৭৪) বর্ষাকালে ভারতে কোন জেটবায়ু প্রবাহিত হয়?
উঃ পুবালি জেট।
৭৫) কোরিওলিস বল কোথায় সবথেকে বেশি অনুভূত হয়?
উঃ মেরুতে।
৭৬) কোরিওলিস বল কোথায় সবথেকে কম অনুভূত হয়?
উঃ নিরক্ষরেখায়।
৭৭) বায়ুর শক্তিমাত্রা নির্নায়ক স্কেল কোনটি?
উঃ বিউফোর্ট স্কেল।
৭৮) কোরিওলিস বল অপর কি নামে পরিচিত?
উঃ ছদ্ম বল।
৭৯) কোন অঞ্চলে খাবার সবচেয়ে ভালো সেদ্ধ হয়?
উঃ সমুদ্র সমতল অঞ্চলে।
৮০) কোন যন্ত্রের সাহায্যে বায়ুপ্রবাহের দিক নির্ণয় করা হয়?
উঃ বাতপতাকা।
৮১) গভীর সমুদ্রে সমুদ্রস্রোতের গড় গতিবেগ কত?
উঃ ৩ – ৩.৫ কিমি/ঘন্টা।
৮২) অগভীর সমুদ্রে সমুদ্রস্রোতের গড় গতিবেগ কত?
উঃ ৭ – ৯ কিমি/ঘন্টা।
৮৩) পৃথিবীর বৃহত্তম মগ্নচড়া কোনটি?
উঃ গ্র্যান্ডব্যাঙ্ক (আটলান্টিক মহাসাগর)।
৮৪) পৃথিবীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কডমাছ শিকার কেন্দ্র কোনটি?
উঃ গ্র্যান্ড ব্যাঙ্ক (আটলান্টিক মহাসাগর)।
৮৫) চাঁদ কতদিনে পৃথিবীকে একবার প্রদক্ষিন করে?
উঃ ২৭ দিন।
৮৬) কিসের প্রভাবে মুখ্য জোয়ার সৃষ্টি হয়?
উঃ চাঁদের আকর্ষন।
৮৭) কিসের প্রভাবে গৌণ জোয়ার সৃষ্টি হয়?
উঃ পৃথিবীর কেন্দ্রাতিগ বল।
৮৮) পৃথিবীর জলভাগে প্রতি ২৪ ঘন্টায় কতবার জোয়ার ও কতবার ভাঁটা হয়?
উঃ ২ বার জোয়ার ও ২ বার ভাঁটা।
৮৯) প্রতি ২৪ ঘন্টায় চাঁদ কত ডিগ্রি কৌণিক পথ অতিক্রম করে?
উঃ ১৩ ডিগ্রি।
৯০) পৃথিবীর দুটি মুখ্য জোয়ার বা দুটি গৌণ জোয়ারের মধ্যে সময়ের ব্যবধান কত?
উঃ ২৪ ঘন্টা ৫২ মিনিট।
৯১) পৃথিবীর একটি মুখ্য জোয়ার ও একটি গৌণ জোয়ারের মধ্যে সময়ের ব্যবধান কত?
উঃ ১২ ঘন্টা ২৬ মিনিট।
৯২) পৃথিবীর একটি স্থানে জোয়ার ও ভাঁটার মধ্যে সময়ের ব্যবধান কত?
উঃ ৬ ঘন্টা ১৩ মিনিট।
৯৩) কোন তিথিতে ভরা কোটাল হয়?
উঃ পূর্নিমা ও অমাবস্যা তিথিতে।
৯৪) পৃথিবীতে কত দিন পরপর ভরা কোটাল হয়?
উঃ ১৫ দিন।
৯৫) কোন তিথিতে মরা কোটাল হয়?
উঃ কৃষ্ণ ও শুক্ল পক্ষের অষ্টমী তিথিতে।
৯৬) সিজিগি কি?
উঃ যখন সূর্য, চন্দ্র ও পৃথিবীর কেন্দ্র একই সরলরেখায় অবস্থান করে, তাকে সিজিগি বলে।
৯৭) সিজিগি কয় প্রকার ও কিকি?
উঃ দুই প্রকার– প্রতিযোগ অবস্থান (পূর্নিমার দিন ; সূর্য ও চন্দ্রের মাঝে পৃথিবী) & সংযোগ অবস্থান (অমাবস্যার দিন ; সূর্য ও চন্দ্র পৃথিবীর একই দিকে)।
৯৮) অ্যাপোজি বা অ্যাপোগি কি?
উঃ চাঁদ যখন পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে সবচেয়ে দুরে অবস্থান করে, অর্থাৎ চাঁদের অপসূর অবস্থানকে অ্যাপোজি বা অ্যাপোগি বলে।
৯৯) পেরিজি বা পেরিগি কি?
উঃ চাঁদ যখন পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে সবচেয়ে কাছে অবস্থান করে, অর্থাৎ চাঁদের অনুসূর অবস্থানকে পেরিজি বা পেরিগি বলে।
১০০) কতদিন অন্তর চাঁদের অ্যাপোজি ও পেরিজি অবস্থান হয়?
উঃ ১৫ দিন।
১০১) কোন তিথিতে বানডাকা দেখা যায়?
উঃ পূর্নিমা & অমাবস্যা তিথিতে ; ভরা কোটালের সময়।
১০২) কেন্দ্রাতিগ বল কি?
উঃ পৃথিবীর আবর্তনের ফলে পৃথিবীর কেন্দ্রে উৎপন্ন বহিমুর্খী শক্তি।
১০৩) কোন মহাসাগরে হিমপ্রাচীর দেখা যায়?
উঃ আটলান্টিক মহাসাগর।
১০৪) পৃথিবীর সর্বাধিক জাহাজ যাতায়াত করে কোন অঞ্চলে?
উঃ উত্তর আটলান্টিক মহাসাগর।
১০৫) জায়র বা চক্রগতি কি?
উঃ মহাসাগরের জলরাশির সামগ্রিক চক্রাকার গতিকে জায়র বলে।
১০৬) পৃথিবীর গভীরতম সমুদ্রখাত কোনটি?
উঃ মারিয়ানা খাত।
১০৭) মরা কোটালের সময় সূর্য ও চাঁদের পারস্পরিক অবস্থান কিরূপ থাকে?
উঃ সমকৌণিক।
১০৭) চাঁদ অপেক্ষা সূর্যের ভর কতগুন বেশি?
উঃ ২৫৫ গুন বেশি।
১০৮) পৃথিবীর ওপর চাঁদের আকর্ষণ মান কত গুন বেশি?
উঃ ২.২ গুন বেশি।
১০৯) সাধারন জোয়ারের তুলনায় পেরিজি/পেরিগি জোয়ারে জলস্ফীতি কত শতাংশ বেশি হয়?
উঃ ২০%
১১০) কাডাল শব্দের অর্থ কি?
উঃ সমুদ্র।
১১১) পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব অপেক্ষা পৃথিবী থেকে সূর্যের দূরত্ব কত গুন বেশি?
উঃ ৩৯১ গুন।
১১২) কোন ঋতুতে সবচেয়ে বেশি বানডাকা হয়?
উঃ বর্ষা।
১১৩) চাঁদ ও সূর্যের জোয়ার উৎপন্ন করার ক্ষমতার প্রকৃত অনুপাত কত?
উঃ ১১ : ৫
১১৪) কোন কোন সাগরে জোয়ার ভাঁটা সেইরূপ দেখা যায় না?
উঃ ভূমধ্যসাগর ও বাল্টিক সাগর।
১১৫) SPM এর পুরো নাম কি?
উঃ সাসপেনডেড পারটিকুলেট মেটার।
১১৬) বর্জ্য ব্যবস্থাপনা-তে 3R কি?
উঃ Reduce – বর্জ্যের পরিমান হ্রাস ; Reuse – পুনর্ব্যবহার ; Recycle – পুনর্নবীকরন।
১১৭) ল্যান্ড ফিল পদ্ধতি কি?
উঃ বড়ো আকারের জমিকে গভীর ভাবে খনন করে, কঠিন বর্জ্য পদার্থ দিয়ে তা ভরাট করে, সবশেষে পুনরায় মাটি চাপা দেওয়া হয়। একে ল্যান্ড ফিল পদ্ধতি বলে।
১১৮) কম্পোস্টিং কি?
উঃ গ্রামাঞ্চলে বাড়ির সামনে জমিতে গর্ত খনন করে, তাতে গৃহস্থালির দৈনিক বর্জ্য ফেলে ভরাট হলে মাটি চাপা দেওয়ার পদ্ধতিকে কম্পোস্টিং বলে।
১১৯) স্ক্র্রাবার কি?
উঃ স্ক্র্রাবার হল বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রনের কাজে ব্যবহৃত একটি যন্ত্র, যা দূষিত পদার্থ গুলিকে আলাদা করে দেয়।
১২০) কঠিন বর্জ্য থেকে কোন গ্যাস পাওয়া যায়?
উঃ জৈব গ্যাস।
১২১) কি তৈরিতে ফ্লাই অ্যাশ ব্যবহৃত হয়?
উঃ ইট তৈরিতে।
১২২) চিকিৎসা বর্জ্য থেকে কোন রোগ ছড়াতে পারে?
উঃ টাইফয়েড।
১২৩) কোথা থেকে ফ্লাই অ্যাশ পাওয়া যায়?
উঃ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র।
১২৪) সর্বাধিক বিষাক্ত বর্জ্য কোনটি?
উঃ তেজস্ক্রিয় বর্জ্য।
১২৫) ল্যান্ডফিল পদ্ধতিতে জৈব পদার্থের পচন হতে কত সময় লাগে?
উঃ ৪-৬ মাস।
১২৬) ভারতের কোন মেগাসিটিতে বর্জ্যের চাপ সবচেয়ে বেশি?
উঃ কোলকাতা।
১২৭) একটি পরিবেশমিত্র বর্জ্যের নাম লিখ।
উঃ চট।
১২৮) একটি পূর্নচক্রী বর্জ্যের উদাহরন দাও।
উঃ প্লাস্টিকের বোতল।
১২৯) একটি তরল বর্জ্যের উদাহরন দাও।
উঃ মোবিল।
১৩০) ল্যান্ডফিলে বর্জ্য ধোয়া জলকে কি বলে?
উঃ লিচেট।
১৩১) একটি বিষাক্ত বর্জ্যের উদাহরন দাও।
উঃ CFC বাল্ব।
১৩২) নরওয়েতে স্ক্র্রাবার থেকে ছড়িয়ে পড়া সংক্রামক রোগ কোনটি?
উঃ লেজিওনিয়ার্স।
১৩৩) কবে কোথায় ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’ শুরু হয়?
উঃ ২/১০/২০১৪, নিউ দিল্লি।
১৩৪) বর্জ্য ব্যবস্থাপনার প্রথম লক্ষ কি?
উঃ বর্জ্যের পরিমানগত হ্রাস।
১৩৫) গোবর গ্যাসের মূল উপাদান কি?
উঃ ৬০% মিথেন ও ৪০% কার্বন ডাই অক্সাইড।
১৩৬) একটি চিকিৎসা সংক্রান্ত বিপদজনক/বিষাক্ত বর্জ্যের উদাহরন দাও।
উঃ ক্যাথিটার।
১৩৭) বর্জ্য থেকে তাপ উৎপাদনে একটি অক্সিজেনবিহীন দহনের প্রক্রিয়ার নাম লিখ।
উঃ পাইরোলিসিস।
১৩৮) কঠিন বর্জ্য নিয়ন্ত্রনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি কোনটি?
উঃ স্যানিটারি ল্যান্ডফিল।
১৩৯) কম্পোস্টিং পদ্ধতিতে কোন প্রকার ব্যাকটেরিয়া ব্যবহৃত হয়?
উঃ অ্যারোবিক ব্যাকটেরিয়া।
১৪০) কবে ভারতে বিপদজনক বর্জ্য আইনটি প্রচলিত হয়?
উঃ ১৯৮৯ সালে।
১৪১) বর্জ্য পদার্থের নিয়ন্ত্রিত দহনকে কি বলে?
উঃ ইনসিনারেশন।
১৪২) কঠিন বর্জ্য পদার্থের সবথেকে বড়ো উৎস কি?
উঃ ইমারতি দ্রব্য।
১৪৩) একটি অর্গানোক্লোরিন বর্জ্যের উদাহরন দাও।
উঃ ডিডিটি।
১৪৪) রাবিশ কি?
উঃ যেসব দাহ্য বা অদাহ্য কঠিন বর্জ্য পদার্থ ব্যবহারের পর বাতিল করা হয়, তাদের রাবিশ বলে।
উদাহরন – কাগজ, কাঠ।
১৪৫) ওপেন ডাম্পিং কি?
উঃ শহরের কাছে নীচু খোলা জমিতে বর্জ্য উন্মুক্তভাবে ফেলে রাখাকে ওপেন ডাম্পিং বলে।
১৪৬) ব্যাগাসে কি?
উঃ আখের ছিবড়ে কে ব্যাগাসে বলে।
১৪৭) ওশেন ডাম্পিং কি?
উঃ মহাসমুদ্রে, উপকূল থেকে কমপক্ষে ৩০০ কিমি দূরে, প্রায় ১০০০০ মিটার গভীরতায় কঠিন বর্জ্য নিক্ষেপকে ওশেন ডাম্পিং বলে।
১৪৮) কোন দূষণকে প্রথম দূষণ বলে?
উঃ জলদূষণ।
১৪৯) কোন দূষণকে দ্বিতীয় দূষন বলে?
উঃ বায়ুদূষণ।
১৫০) কোন দূষনকে তৃতীয় দূষন বলে?
উঃ বর্জ্য দূষন।

Suggested by Sneha Das.

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s